গুগল এডসেন্স, অনলাইনে আয়ঃ আমার অপছন্দের বিষয় যে কারণে

এটা আসলে নতুন কোন পোস্ট না, একটা কমেন্টের উত্তর। হাসান ভাইয়ের ব্লগে আদনান ভাইয়ের একটা পোস্টে কমেন্ট করেছিলাম-

আমি এইসব এডসেন্স ফ্যাডসেন্স পছন্দ না করলেও আদনান ভাইয়ের এই লেখাটা আমার ভাল লেগেছে। আদনান ভাইয়ের লেখার স্টাইলটা দারুন লাগে।

হাসান ভাই উত্তর দিয়েছিলেন-

এডসেন্স সবার পছন্দ না হতেই পারে, তাতে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। তবে ইন্টারনেটে আয়ের ব্যাপারে আপনি কোন বিষয়ে আগ্রহী জানালে খুশি হতাম। আর যদি আপনার পছন্দের বিষয়ে অতিথি ব্লগার হিসেবে লিখতে চান, তাহলে এই ব্লগের দরজা খোলা থাকলো।

মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

হাসান ভাইয়ের কমেন্টের জবাব লেখার পর মনে হলো- এটা পোস্ট আকারে থাকুক আমার ব্লগে। অনেকেই তো আমাকে এইটা নিয়ে মাঝে মাঝে প্রশ্ন করে। নেক্সট টাইম কোন কুয়েশ্চান আসলে এই পোস্টের লিঙ্ক ধরিয়ে দেব।

হাসান ভাই,

আমি আসলে এগুলো সম্পর্কে তেমন একটা জানিনা। তবে এডসেন্স, এডসেন্স, অনলাইন আয়, অনলাইন আয় ইত্যাদি করে চিল্লাতে চিল্লাতে কিছু মানুষ এত লোভী / ভাবাড়ু হয়ে উঠছে যে এটার প্রতি ঘৃণার মতো সৃষ্টি হয়ে গেছে। মোটামুটি দুধের বাচ্চা (২ দিন হলো ইন্টারনেট কানেকশান নেওয়া, ইন্টারনেটের হযবরল কিছুই জানেনা) ব্লগ খুলে বসে থাকছে আর ডায়লগ দিচ্ছে এখানে আমি আপনাদের অনলাইনে আয়ের সবকিছু দিব, হ্যান কারেঙ্গা, ত্যান কারেঙ্গা ইত্যাদি।

আরেকদল আছে যারা নিজের ব্লগ/সাইটের বিজ্ঞাপন দিতে এতটাই নির্লজ্জ হয়ে ওঠে যে নূন্যতম পার্সোনালিটিটাও বিসর্জন দিতে দ্বিধা করেনা।

আবার অনেককে এমনও দেখেছি যে অনলাইনে আয় করার জন্য সারাদিন পড়ে থাকে ইন্টারনেটে, এসইও, এডসেন্স ইত্যাদির পিছনে ছোটাছুটি করতে করতে নিজের ক্যারিয়ারের বারটা বাজিয়ে ফ্যালে।

এরকম আরও অনেক কারণে এগুলোর প্রতি প্রায় একরকম ঘৃণার মতো চলে এসেছে বলা যায়।

আমন্ত্রনের জন্য ধন্যবাদ ভাই। আমি এই বিষয়গুলা তেমন একটা জানিনা। তবে ইন্টারনেটে ঘোরাঘুরি করতে করতে এ সম্পর্কিত অনেক লেখা পড়েছি।

প্রত্যেকটা লেখা পড়ার পর মনে হয় আমি কি শিখলাম এই লেখা থেকে? ফলাফল- কিছুই না। যা বলা হয়েছে তার তো প্রায় সবই জানতাম। ব্যাপারটা অনেকটা, ভাত খেতে হলে প্রথমে থালি ধুতে হয়, তারপর হাত, তারপর প্লেটে ভাত নিতে হয় ইত্যাদি টাইপ মনে হয়।

তবে একথা সত্য, কিছু নতুন টার্ম শিখেছি। কিন্তু আমার মনে হয় এত টিপস, ট্রিকস ইত্যাদির চেয়ে নিজে একটু চিন্তা করলেই অনেক ভাল কিছু করা যায়। এগুলা তো মনে হয় অনেকটা প্র্যাকটিসের ব্যাপার। কেউ কি কাউকে শেখাতে পারে?

যে যত বেশি প্র্যাকটিস করবে সে তত বেশি শিখবে। একজন যে সময়টা এসব টিপসের পেছনে নষ্ট করে সে সময়ে নতুন এক্সপেরিমেন্ট করে দেখতে পারে। আমার ধারণা ভূলও হতে পারে। কিন্তু এটাই আমার মনে হয়। মানে সেলফ হেল্প ইজ বেস্ট হেল্প!

কি করলে আমার ব্লগে বেশি ভিজিটর আসবে সেটা আমার চেয়ে বেশি আর কে জানবে? আমি কি লিখব সেটা আমিই সবার চেয়ে ভাল জানি। সুতরাং আয় আয় করে ছুটোছুটিটা আমার ভাল লাগেনা খুব একটা। অবশ্য আমি শখে ব্লগিং করি, হতে পারে এজন্যই আমার এই সীমাবদ্ধতা।

37 responses to “গুগল এডসেন্স, অনলাইনে আয়ঃ আমার অপছন্দের বিষয় যে কারণে

  1. উত্তর পছন্দ হইছে। আর অনেকে আসলেই নিজের ব্লগের বিজ্ঞাপন দিতে গিয়ে নির্লজ্জ হয়ে পরে। অনেক সময় দেখি অনেকে বিভিন্ন জনের ব্লগে গিয়ে মন্তব্যে লিখে এসেছে এটা আমার ব্লগ, প্লিজ ভিজিট কিন্তু যে পোস্টে কমেন্ট করা হয়েছে সে পোস্ট সম্পর্কে একটা শব্দও নেই। এটা আসলেই খুব বিরক্তিকর।

  2. আমি মনের আনন্দের জন্য ব্লগিং করি। তারপরও শেখার আগ্রহ থেকেই এডসেন্স, সার্চ ইঞ্জিন আপটিমাইজেশন বিষয় গুলো শেখার চেষ্টা করছি। জিন্নাত ভাইয়ের ব্লগে আপনার মন্তব্যের জবাবে ‘Nasha’ যে মন্তব্য করেছে তার কি কোন উত্তর পেয়েছেন? উনি কি বুঝাতে চেয়েছে আমিও বুঝতে পারি নাই। আমার মনে হয় কেউ বুঝতে পারে নাই।

    • হুম। আনন্দের জন্য ব্লগিং করাটাই আমার কাছে সুখের মনে হয়। পাশাপাশি যা শিখি সেটা বোনাস।😀
      উনার উত্তরের জন্য অপেক্ষা করছি আমিও😀

  3. রনি ভাই আপনার চিন্তা ধারার সাথে আমার চিন্তা ধার একধুম মিলে গেছে।
    আর আমি ব্লগ লিখি শুধু মাএ নিঝের আনন্দের জন্য ।

    ‘মোটামুটি দুধের বাচ্চা (২ দিন হলো ইন্টারনেট কানেকশান নেওয়া, ইন্টারনেটের হযবরল কিছুই জানেনা) ব্লগ খুলে বসে থাকছে আর ডায়লগ দিচ্ছে এখানে আমি আপনাদের অনলাইনে আয়ের সবকিছু দিব, হ্যান কারেঙ্গা, ত্যান কারেঙ্গা ইত্যাদি। ‘

    আর আপনার এই কথাটা চরম হয়েছে। আমি ত্ত ব্যাপারটা লক্ষ্য করেছি।

  4. তোমারে যে কি বলে ধন্যবাদ দিবো বুঝতাছিনা। আসলে অনেকে মনে করে ইন্টারনেটে আয় করা এই ব্যাপারটা যেন এখন হাতের ইশারায় হয়। তাই শখ করে ব্লগ বানায় তার এ্যাড দিয়ে বেড়ায় যেকানে সেখানে। ব্যক্তিগত ভাবে আসি টেকটিউন্সে দেখেছি, অনেকে মন্ত্যবের জায়গায় নিজের ব্লগের এ্যাড্রিসটাই দিয়ে রাখে। এত করে সেই সম্মানিত মন্তব্যদাতা মনে করেন যে তার ব্লগের ভিজিটর মনে হয় বেড়ে যাবে। কিন্তু বাচাধন তার কুল হারিয়ে ফেলে শেষ পর্যণ্ত ব্লগিংটাই বাদদিয়ে দেয়। আর কি বলবো……..🙂

  5. রনি ভাই নতুন ইন্টারনেটে আসলে কিছু উঠকট পোষ্ট দেখে সবাই মনে করে ইন্টারনেটে আয় মনে হয় বাবার পকেটের পয়সা একটু পুরাতন হলে বোঝা যায় এটা কি চিজ। আর এডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে হলে আমাদের যে কত কিছু জানতে হয় এক বার হিসেব করে দেখেন।
    তার চেয়েও ফ্রিল্যান্সিং আরও অনেক সহজ।

    আর একটা কথা বলি, কিছু মনে করিয়েন না। আমি আপনার ব্লগে আসি শুধু আপনার ডাইরি পড়ার জন্য। জাফর ইকবালের কিশোর উপন্যাস এর মত আপনার ডাইরির লেখা আমার ভালো লাগে।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s