পাগলামীগুলো-২

তারেক আজিজ
রনি, তোকে আমি সিক্স থেকে দেখে আসছি। ইদানিং তোর সাথে আমার খুব ভাল সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। ইদানিং গড়ে ওঠা সম্পর্কের দরুন যা জানি তা খুবই অল্প । আমার ক্ষুদ্র জ্ঞান দ্বারা তা উপস্থাপন করছি।

অনেক বন্ধুই তোর সম্পর্কে কিছু লেখতে গিয়ে তোর বদ অভ্যাসগুলো এড়িয়ে যাবে। কিন্তু আমি তোর বাস্তব অবস্থা তুলে ধরার চেষ্টা করবো। এতে তুই যদি আমার কাছ থেকে কোন অপ্রত্যাশিত কথা পেয়ে থাকিস তাহলে আমাকে ক্ষমা করে দিবি।

সর্বপ্রথমে যা বলবো Rony আমাদের স্কুলের একজন বাচাল চেলে। আমি জানি তুই অন্যকে খুশি করার জন্য বেশি কথা বলিস। কিন্তু অনেকেই এতে বিরক্ত হয়। তুই একজন ভাল ছাত্র। কিন্তু আমি জানিনা কেন তুই অন্যকে তোষামোদ করিস। তুই মানুষকে বেশি ভালবাসিস, তাই আমার জানামতে সবচেয়ে বেশি আঘাত পেয়েছিস তোর কাছের বন্ধুদের কাছ থেকে। তুই বারবার বন্ধু চিনতে ভুল করিস।

তোর প্রতি আমার অনুরোধ তুই সর্বপ্রথমে মৃতিভাষী হবি। বই মানুষের শ্রেষ্ঠ সঙ্গী। কিন্তু বাস্তবতা ও বইয়ের পাতায় মুখ বুঁজে বসে থাকা এক কথা নয়। তুই যদি বাস্তবতাকে মেনে নিতে না পারিস তাহলে সমাজে চলতে পারবিনা।

নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবি, সত্য কথা বলবি, কোন অন্যায় করে থাকলে আল্লাহর কাছে ক্ষমাপ্রার্থণা করবি।জীবনে কখনও আর বন্ধু চিনতে ভুল করবিনা। কথায় বলে “সঙ্গদোষে শিলা ভাসে”।

Rony, চলাফেরার মাধ্যমে বুঝতে পেরেছি তোর মনটা খুবই ভাল। তুই শারিরীক দিক দিয়ে বর হয়েছিস ঠিকই, কিন্তু মানসিক দিক দিয়ে এখনও অনেক ছোট আছিস।
তারেক

এরপর যথারীতি ডায়েরীটা মোস্তাফিজুরের কাছে যাওয়ার কথা। মোস্তাফিজুরের জন্য বরাদ্দ জায়গায় ফাজলামী আবার লেখা আরম্ভ করলো উৎপল- “কবুতরের পায়রার মত শুভ্র তোমার মন। আসলেই বড় মনের মানুশ তুমি, আর আমি মনে করি এই বড় হৃদয়টাই তোমার সাফল্যের কারণ”।

15 responses to “পাগলামীগুলো-২

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s