আপনার বাংলালিঙ্ক সিমকার্ডটি এখনও আপনারই আছে তো?

সিমকার্ড সংগ্রহ করা একসময় আমার শখ ছিল। নতুন ভাল কোন সিমকার্ড পেলেই কিনে রাখতাম। কলেজে পড়ার সময় অনেকগুলো সিম থেকে কথা বলতাম অনেকের সাথেই। ধীরে ধীরে সিমকার্ডের প্রতি আগ্রহ কমে যায়, তাই কেয়ারফুল ছিলামনা সেগুলোর প্রতি। গত কয়েকদিন থেকে একটা বাংলালিঙ্ক সিমকার্ড ব্যবহার করা বেশ জরুরী হয়ে পড়েছে। ভাবলাম, আগের সিমগুলোই তুলে ব্যবহার করি।

বাংলালিঙ্ক কাস্টমার কেয়ারে গেলাম। সাথে ২ টা সিমের কাগজ। ম্যানেজারকে সেটা দিয়ে সিম উঠাতে চাই সেকথা বললাম। অনেকক্ষন কি কি জানি করলেন তিনি। জিজ্ঞেস করলেন আগে কখনও এই সিমকার্ড উঠিয়েছিলাম কিনা। আমি বললাম না, উঠাইনি। উনি বললেন আপনার এই সিমকার্ড আগে একবার উঠানো হয়েছে। এফএনএফ নাম্বার আর লাস্ট রিচার্জের এমাউন্ট বলে। আমি বললাম “না তো!”

উনি আমার এফএনএফ নাম্বারগুলো জানতে চাইলেন। আমি বললাম। কিন্তু মেলেনা। মেজাজটা গরম হলো। বললেন অন্য কেউ উঠিয়ে নিয়েছে। আমি আর কি বলবো! মেজাজ প্রচন্ড গরম। মিশুক বললো অনেকদিন সিম ব্যবহার না করলে বাংলালিঙ্ক নাকি সেই নাম্বারের সিম অন্যের কাছে বিক্রি করে দেয়!

হায় আল্লাহ! কত ফ্রেন্ডের সাথে একসময় কথা বলেছি সেই সিম দিয়ে! আনফরচুনেটলি যদি তারা কখনও কল করে বসে সেই নাম্বারে! দ্রুত আরেকটা নাম্বার চেক করালাম। একই অবস্থা এটারও। আরেকজন তুলে নিয়েছে!

কাস্টমার কেয়ার থেকে বের হয়ে ফোন দিলাম সেই নাম্বারে। নাম্বারটা খোলা। কল রিসিভ করলো। জিজ্ঞেস করলাম, “আপনি কি এই সিমকার্ডটা কিনেছেন?” পুরো ঘটনা তাকে বুঝিয়ে বললাম। উত্তরে তিনি জানালেন, সিমটি তিনি কাস্টমার কেয়ার থেকেই কিনেছেন, কিন্তু তিনি জানতেন না এই সিমটি আগে আমি ব্যবহার করতাম।

কি আর করবো! দীর্ঘশ্বাস ফেললাম শুধু। আমার মতো যারা এরকম সিমকার্ড ফেলে রেখেছেন একটু খোঁজ নিয়ে দেখুন সিম কার্ডটি কি এখনও আপনারই আছে? নাকি অন্য কারও হয়ে গেছে?

28 responses to “আপনার বাংলালিঙ্ক সিমকার্ডটি এখনও আপনারই আছে তো?

  1. Once my friend called me with a very disappointed voice. He told me what exactly happened! Just your case…..like you I’ve also several sim cards. Number series is the priority to me. I’m very careful & make them all be registered under my possession & verified thereafter.

    Anyway, my friend thought I would help him. But he had no registration paper & actually that wasn’t registered to him, he & I knew that well. But he had the start-up kit. Although the fnf numbers were changed but he remembered his earlier fnf, recharge’s approximate date. I told him to go with me.

    We went to gulshan-2 CCC. We told but manager said it wasn’t registered to him. but all other data matched. Then he called the faridpur banglalink point from where it was replaced. Mainly it is done by point always. But its not legal I think. So he took action. But one thing he requested that he asked him to use it for at least six months regularly. Then they’ll register it to him if he wants. Now he is using……

    So may be you can contact any care centers not points…..

  2. Once i had sim cards of all operators (except citycell😉 ). Ever since i started using gp internet, i didn’t open any other sim. However, few days ago I tried but my warid and djuice sim was spoiled being in moneybag😦 I don’t know what’s happening to my banglalink number. But i have to check this out now because I have a very sweet banglalink number.😀

  3. আমি চরম বিরক্ত বাংলালিংকের উপর। আমার সাথে তারা চরম জঘন্য ব্যবহার করেছে।

    বছর দেড়েক আগে বিড়িতে গিয়ে আমার মানিব্যাগ চুরি হয়ে গেল। একটা একটেল আর একটা বাংলা লিংকের সিম ছিল। সিমের কাগজপত্র হলে রেখে এসেছি। এলাকার বাংলালিংক অফিসে গেলাম, বললাম আমার কাহিনী। এক কথায় বলে দিল কাগজ ছাড়া নতুন সিম দেওয়া যাবে না। বললাম তাহর সেটা বন্ধ করে দিন। বলল, তাও নাকি কাগজ ছাড়া করা যাবেনা। ছুটি শেষে মাসখানেক পরে হলে ফিরলাম। ব্যাস্ততার কারনে আরও মাস খানেক পরে সাহেব বাজারে ওদের কাস্টমার কেয়ারে গেলাম। আমার কাগজ দেখল, এফ এন এফ নাম্বারগুলো নিল। বলল এফ এন এফ নাম্বারগুলো চেঞ্জ হয়েছে। আমি তো আকাশ থেকে পড়লাম। বুঝলাম ব্যাটা চোর আমার নাম্বার ব্যবহার করছে। আমাকে ঐ কাস্টমার কেয়ার ম্যানেজার পরেরদিন আসতে বলল। ঐ দিনই কিন্তু আমি আসল কাগজ দেখিয়ে কোন ঝামেলা ছাড়াই হারানো একটেল সিম তুলে নিলাম। পরদিন আবার গেলাম, গিয়ে ডিজিটাল টাইমের ফেরে দেখা পেলাম না। পরদিন চলে গেলাম ইন্ডাস্ট্রিয়াল এটাচমেন্টে। মাস দেড়েক পর আবার ভাসর্টির কাছে (কাজলায়) এক কাস্টমার কেয়ারে গেলাম। সেই ব্যাটাও আমাকে দুইদিন ঘোরালো। মাথায় রোখ চেপে গেল। আমার এক ক্লাসমেটের বড় ভাই বাংলালিংকের কাস্টমার কেয়ার ম্যানেজার। তাকে ধরলাম আমার সিমটা তুলে দেবার জন্য। তিনি জানালেন আসল কাহিনী। বাংলালিংক নাকি তাদের এক বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকা সিম আবার নতুন করে বাজারে বিক্রি করে দেয়। আমার সিম সেভাবেই অন্য একজন কিনে নিয়েছে এবং ব্যবহার করছে।

    আপনিই বলুন এখন কি করতে ইচ্ছে করে। আমি হলফ করে বলতে পারি আমির সিম ৩ থেকে ৪ মাসের বেশি বন্ধ ছিল না। আমার কাছে আসল রেজিস্ট্রেশনের কাগজ থাকার পরেও এমন ভুগতে হল। এর পরে রাগ করেই আর কোন বাংলালিক সিম কিনিনি।

    • আমিও বাংলালিঙ্ককে Shift+Delete বলছি আজ থেকে। গ্রামীন রক্তচোষা হলেও অন্তত এই দিকগুলো দিয়ে ভাল। একটা ওয়ারিদ সিম কিনবো ভাবছি। কম খরচে কথা বলার জন্য ওয়ারিদই ভাল।

      বাংলালিঙ্ক কাজটা মোটেও ঠিক করছে না।

  4. বন্ধ সিম তো পরের কথা, আমি বর্তমানে ব্যবহার করি এমন সিটিসেলের একটা রিম, যেটি আমি SAF পূরণ করে, আইডি দিয়ে, ছবি দিয়ে কিনেছিলাম, জরুরি কাজে ব্যবহার করবো বলে।
    কিছুদিন আগে খোঁজ নিয়ে দেখি, সেটা এখন অন্যের নামে, অন্য ঠিকানায় রেজি: করা, অথচ সম্পূর্ণ বৈধভাবে কিনলাম আমি, এখনও রিমটা আমার হাতেই। অবাক হয়েছিলাম, এরকম ভুলও (ভুল নাকি ইচ্ছাকৃত!) হয়!

  5. কি ভয়ঙ্কর কান্ড। অবশ্য আমি এমনিতেই বাংলালিংকের ব্যপারে খুবই বিরক্ত। তবে বাংলালিঙ্কের এহেন কর্ম কান্ড সাপোর্ট করার মত না। ওদের আরেকটা প্রব্লেম হল, তাড়াতাড়ি সার্কিট নষ্ট হয়ে যাওয়া। আমি সেই আদি কাল থেকে একটা একটেল সিম ব্যবহার করছি। এখনো কোন সমস্যা দেখাদেয়নি, কিন্তু গত ৬ মাস আগে কেনা বাংলালিঙ্ক সিমটা এখন “ইনসার্ট সিমকার্ড” দেখাচ্ছে। কনতো কেমন লাগে,…….!

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s